খুনের ঘটনায় কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের আরও এক কাউন্সিলর কারাগারে

কুমিল্লা প্রতিনিধি।। কুমিল্লায় আরও এক নবনির্বাচিত কাউন্সিলরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। কারাগারে যাওয়া কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেন বাবুল কুসিক এর ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক এবং সদ্য বিজয়ী কাউন্সিলর। 

বুধবার (২৯ জুন) দুপুরে কুমিল্লা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ১ম আদলাতের বিচারক আব্বাস উদ্দিনের কাছে জামিন চান কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেন বাবুল। আদালত তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। 

বিবাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাড. জোছনা আক্তার নৈশর বুধবার বিকেলে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি জানান, ২০২০ সালের ৩০ মার্চ কুমিল্লা নগরীর সংরাইশ এলাকার দুপক্ষের সংঘর্ষে হাজী আবদুল মতিন নামে একজনের মৃত্যু হয়। ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে জাহাঙ্গীর হোসেন বাবুলের নেতৃত্বে বাড়িঘর ভাঙচুর এবং লুটপাট চালায়।

পরে পলিন আক্তার নামের এক নারী কোতোয়ালি মডেল থানায় বাদী হয়ে বাবুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন। এতে প্রধান আসামি করা হয় কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেন বাবুলকে। ওই মামলায় হাজির হয়ে জামিন চাইতে গেলে আদালত তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।কাউন্সিলর বাবুল ছাড়াও এ মামলায় আরও ১১ জন আসামি রয়েছেন। 

এ নিয়ে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মোট ৩ নবনির্বাচিত কাউন্সিলর কারাগারে রয়েছেন। এর আগে গত ২১ জুন কুসিক এর ১ ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম কিবরিয়া এবং ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর একরাম হোসেন বাবু কুমিল্লা কোতয়ালি মডেল থানায় দায়ের করা বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলায় জামিন চাইতে গেলে আদালত তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।