স্বামীর মৃত্যুর ২ বছর পর সন্তানের জন্ম দিলেন স্ত্রী!

২০২০ সালের জুলাই মাসে লরেন ম্যাকগ্রেগর তার স্বামী ক্রিসকে হারান। ক্রিস ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত ছিলেন। দম্পতিটি একটি সন্তান নেওয়ার পরিকল্পনা করছিলেন। কিন্তু সেই স্বপ্নের পথে বড় বাধা হয়ে দাঁড়ায় ক্রিসের হৃদয়বিদারক এই মারাত্মক রোগটি। কিন্তু একেই বলে কুদরত কি ক্যারিশমা।

ক্রিসের মৃত্যুর প্রায় দুই বছর পর, লরেন এখন তার প্রয়াত স্বামীর সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। লিভারপুলের বাসিন্দা ৩৩ বছর বয়সী এই তরুণী ২০২০ সালের জুলাই মাসে মারা যাওয়া ক্রিসের হিমায়িত শুক্রাণু ব্যবহার করে গর্ভধারণ করতে সক্ষম হন।

রিপোর্ট অনুসারে, আইভিএফ প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার আগে লরেনের স্বামী মারা যান। তারপর সন্তান পেতে ৯ মাস অপেক্ষা করেছিলেন স্বামী হারা এই তরুণী। ১৭ মে লরেন একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেন।

আনন্দে উচ্ছ্বসিত লরেন বলেন, ছেলে সেবকে তার বাবার ছবির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার দরকার ছিল বলে আমি অনুভব করিনি। মনে হয়েছিল যে তারা একে অপরকে ইতোমধ্যেই চেনে। ক্রিস এখন যেখানেই আছেন সেখান থেকে তিনি আমাকে নিজের একটি ছোট্ট অংশ উপহার দিয়েছেন। যতদিন যাচ্ছে ছেলে তার বাবার মতোই হচ্ছে।

ক্রিসের আগের পক্ষের ১৮ বছর বয়সী ছেলে তার নবজাতক ভাইয়ের বাবার ভূমিকা পালন করছে। ছোট্ট ভাইকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে তার যত্ন করা সবকিছুই সে নিপুণ হাতে সামলাচ্ছে বলে জানিয়েছেন লরেন।