লাকসামে ১৪টি উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শনে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী।

Spread the love

মশিউর রহমান সেলিম, কুমিল্লা প্রতিনিধি: বদলে যাচ্ছে কুমিল্লার লাকসাম পৌরশহরের চেহারা। এমন হাওয়া বইছে পৌরএলাকার সকল সেক্টরে। চলমান অর্থবছর যেনো পৌর এলাকার গ্রামীণ অবকাঠামোসহ নানাহ প্রকল্প বাস্তবায়নে ধারাবাহিক উন্নয়ন সাফল্যে মোড়ানো ঐতিহ্যের বছর। পৌর শহরের সার্বিক যোগাযোগ ব্যবস্থা ক্ষেত্রে এবং সকল সেক্টরে ওই প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন ছিলো পৌর নাগরিকদের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা। স্থানীয় সংসদ সদস্য ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলামের আন্তরিকতা ও প্রচেষ্টায় লাকসাম-মনোহরগঞ্জে নাগরিক সুবিধা বেড়েছে প্রায়ই ৮-১০ গুন বেশি। লাকসাম পৌর পরিষদ নানাহ অবয়বে পুরো শহরের অলিগলিতে চলছে আধুনিকতার ছোঁয়া ফলে এগিয়ে যাচ্ছে স্মার্ট সিটির দিকে।
স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম শনিবার সকাল থেকে দিনব্যাপী লাকসাম পৌরশহরের বিভিন্ন সেক্টরে প্রায় শতকোটি টাকা ব্যায়ে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পগুলো পরিদর্শন করেন। বিশেষ করে লাকসাম রেলওয়ে জংশন বাজার ঢালাই সড়ক, নোয়াখালী রেললাইনের পাশে ঢালাই সড়ক, খান্দানী মার্কেট লেক, বিএন হাইস্কুল ৪র্থ তলা একাডেমিক ভবন, উত্তর বাজার জেলে পাড়া ব্রিজ, উত্তরকুল সলিটরিজ ম্যানেজমেন্ট কমপ্লেক্স, নবাব বাড়ির সামনে ডাকাতিয়া নদীর উপর মনোহরগঞ্জ আঞ্চলিক সড়ক সংযোগ নান্দনিক ব্রিজ, পৌরসভা কনফারেন্স হল, নওয়াব ফয়জুন্নেছা সরকারি কলেজ আলীগড় ভবন, বিজ্ঞান ভবন ও ছাত্রাবাস, লাকসাম উপজেলা পরিষদ প্রশাসনিক ভবন, উপজেলা মিলনায়তন ও গেজেট কর্মকর্তা এবং কর্মচারীদের ম্যাচ ও বাসভবনের কাজ পরিদর্শন করেন।
এছাড়া চলমান অর্থবছরে লাকসাম পৌরএলাকা স্মার্ট সিটিতে রূপান্তর করতে কাঁচা-পাকা সড়ক, ব্রিজ ও অবকাঠামোগত একাধিক উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। সবক’টি উন্নয়ন প্রকল্পই স্থাণীয় সংসদ সদস্য ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের কথা রয়েছে বলে পৌর পরিষদের একাধিক সূত্র জানায়।

 

পথিকটিভি/চৈতী