মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর ও পৌর শাখার মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত।

Spread the love

১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা ও পৌর শাখার উদ্যোগে বীর শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় আলোচনা সভা মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মিলাদ মাহফিলটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া অবকাস্ত স্মৃতি সৌধে অদ্য ১৬ ডিসেম্বর সকাল ০৮ ঘটিকায় অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সাংগঠনিক সম্পাদক ছাত্রনেতা হাফেজ মুহাম্মদ আজিম উদ্দিন আত্বারী। মিলাদ মাহফিলের উদ্বোধক ছিলেন জেলা ইসলামী ফ্রন্টের অর্থ সম্পাদক মাও. সাইয়্যেদুজ্জামান জাবের। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের সদস্য যুবনেতা মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম। এ সময় তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে দীর্ঘ ০৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে ৩০ লক্ষ মুক্তিযোদ্ধাদের শহীদের বিনিময়ে বিশ্বের বুকে আমরা পেয়েছিল লাল/সবুজের স্বধীন সার্বভৌমত্ব একটি রাষ্ট্র। পেলাম নতুন দিগন্ত ও স্বাধীন ভাবে চলা এবং কথা বলার শক্তি। লাঞ্চিত, নিপীড়িত সকল বীর শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনার্থে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করায় তিনি যুবসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের পক্ষ থেকে ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা ও পৌর শাখার নেতৃবৃন্দের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে আরো বলেন, ১৯৭১ সালে ৩০ লক্ষ শহীদ ও ২ লক্ষ মা বোনদের সম্ভ্রমের বিনিময়ে আমরা যে আসায় বিশ্বের মানচিত্রে জায়গা করে নিয়েছিলাম, মহান বিজয় দিবস ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে আমরা সেই কাঙ্ক্ষিত সফল্যে পৌঁছাতে পেরেছি। তিনি বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন বঙ্গালীর জন্য বিরল ইতিহাস হয়ে থাকবে। এই সফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে মাদক, সন্ত্রাস- জঙ্গিবাদ মুক্ত উন্নত সমৃদ্ধশীল দেশ গঠনের মাধ্যমে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কে বিশ্বের বুকে চিরস্মরণীয় করে রাখতে হবে। মিলাদ মাহফিলে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সভাপতি মুফতি আল আমিন মোল্লা, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক সাংবাদিক শেখ মুহাম্মদ নাদিম আহমদ, দাওয়া সম্পাদক মুহাম্মদ রুহুল আমিন, ছাত্রসেনা সরকারি কলেজ শাখার সহ-সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ বায়েজিদ আহমদ, হাফেজ শাহিনুল ইসলাম হাজারী। ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর শাখার সভাপতি ছাত্রনেতা হাফেজ মুহাম্মদ শানু খানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন মাও. মুহাম্মদ ইকরাম হোসাইন, ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার অর্থ সম্পাদক হাফেজ মুহাম্মদ আকরাম হোসাইন, পৌর শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক জোবায়ের আহমদ, ছাত্রসেনা সাদেকপুর ইউনিয়নের সভাপতি মুহাম্মদ জামিউল হোসেন জুয়েলসহ প্রমূখ। বক্তাগন বলেন ১৯৭১ সালে যে কষ্ট করে আমার দেশের বীর মুক্তিযোদ্ধারা পাকিস্তানি বর্ববর সেনাবাহিনীর সাথে দীর্ঘ ০৯ মাস রক্তক্ষয়ী যোদ্ধ করে স্বাধীনতা এনেদিয়েছে তা কোনদিন ও বাঙ্গালী জাতি ভুলবেনা, ভুলতে পারবেনা। আমরা সকল বীর শহীদদের আত্মার মগফেরাত কামনা করছি এবং তাদের পরকালিন জীবনের মঙ্গল কামনা করছি। আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল শেষে বীর শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় এবং দেশে শান্তি শৃঙ্খলা অটুট রাখার লক্ষ্যে মহান আল্লাহ তায়ালার নিকট বিশেষ প্রার্থনা মাধ্যমে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল সমাপ্ত করা হয়।