উত্তর কলীকচ্ছ মডেল স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক পরিক্ষার ফলাফল প্রকাশ ও অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত ।

Spread the love

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের ‘সুহৃদ সংগঠনের ব্যবস্থাপনায় প্রতিষ্ঠিত সরাইলের ‘উত্তর কালীকচ্ছ মডেল স্কুল এন্ড কলেজ এর বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ উপলক্ষে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জনকারী মোট ২৭ জন মেধাবী শিক্ষার্থীর হাতে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিরা। সর্বোচ্চ উপস্থিতির জন্য ৯ জন  শিক্ষার্থীকে পুরস্কার  প্রদান করা হয়।  শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছেন মো. কামরুল হাসান।

অবহেলিত জনপদের স্বপ্ন পুরনে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে উত্তর কলীকচ্ছ মডেল স্কুল এন্ড কলেজ,প্রতিষ্ঠার প্রথম বর্ষে জমকালো আয়োজনের মধ্যে দিয়ে শিক্ষার্থীরদের বার্ষিক ফলাফল প্রকাশ ও অভিাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১৮ ডিসেম্বর শনিবার সকাল ১০টাই  উত্তর কলীকচ্ছ মডেল স্কুল এন্ড কলেজের  অন্যতম সদস্য হাজি মো: আমির আলী সাহেবের সভাপতিত্বে প্রধান অথিতি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কালীকচ্ছ ইউনিয়ন পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. ছায়েদ হোসেন।

বিশেষ অথিতি হিসেবে বক্তব্য রাখেন , বক্তব্য রাখেন-বীর মুক্তিযোদ্ধা এনায়েত হোসেন শিশু,  কৃষি ব্যাংক মৌলভী বাজার শাখার ডিজিএম আনোয়ার হোসেন,সরাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. আইয়ুব খান, কিন্ডার গার্টেন শাখার সভাপতি মো: জাকির হোসেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিলাত খাঁ, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মাহবুব খান, সুহৃদ সোসাইটির সিনিয়র সহ সভাপতি ও সিবিএ সভাপতি মো. বাবুল খান তাপস, বাংলাদেশ ক্রি কেট এসোসিয়েশন কুয়েত এর সভাপতি ,জাহাঙ্গীর খান পলাশ,  আবুল কাশেম ,নব নির্বাচিত ওর্য়াড মেম্বার সহ স্কুল কমিটির সদস্য তালেব হোসেন আতিক হোসেন লুলু মিয়া প্রমুখ।

উত্তর কলীকচ্চ মডেল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক ফারজানা আক্তার ও কামরূল ইসলামের যৌথ  উপস্থপনায় এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন , সাইদুর রহমান, আব্দুল মোতালিব, আলমগীর হোসেন, রেজিয়া খাতুন, শিক্ষক জামাল মিয়া ও নাছরিন আক্তার সহ বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষকবৃন্দ, অভিভাবকবৃন্দ ও বিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত বিভিন্ন শ্রেণির শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন , আমরা এই বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতাদের কৃতজ্ঞতা জনাচ্ছি । আপনাদের সকলের কাছে অনুরুদ বিদ্যালয়টিতে শিক্ষার্থী ভর্তির কাজে আন্তরিক ভাবে সহযোগিতা করবেন । এবং এলাকার প্রত্যেকটি শিশুকে মানুষ গড়ার এই কারখানায় দিলে এরা ধন সম্পদে পরিণত হবে। এরাই হবে আপনার ও জাতির ভবিষ্যৎ কর্ণধার। এই বিদ্যালয়টি  রাজনীতিমুক্ত রেখে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন সকলেই।