হেফাজত কিংবা সুন্নী নয়, পারিবারিক দ্বন্দ্বে ভাদুঘরে সংঘর্ষ: আহত ৫

স্টাফ রিপোর্টার: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মসজিদের সামনে ২ পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ । তবে স্থানীয়রা জানিয়েছেন দরুদ পাঠের বিষয়টিকে ইস্যু বানানো হয়েছে। মূলে ছিল পারিবারিক দ্বন্দ্ব ও পূর্ব শত্রুতা। এটি হেফাজত কিংবা সুন্নীর কোন বিষয় নয় । পুলিশ জানায় বিষয়টি অপপ্রচার । ব্যাক্তিগত বিষয় থেকেই ঘটনার সূত্রপাত । তুচ্ছ বিষয়টিকে ধর্মীয় রুপ দেয়া হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শুক্রবার দুপুরে মসজিদে জুম্মার নামাজের দরুদ শরীফ পাঠ করার জেরে সংঘর্ষে ৫ জন আহত হয়েছে। জেলা সদরের ভাদুঘর খাদেমপাড়া নুর জামে মসজিদে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। জানা যায়, মসজিদে ইমাম হাফেজ আব্দুল আহাদকে একই এলাকার মৃত রফিক মিয়ার ছেলে সোহেল মিয়া জুম্মার নামাজের আজানের পূর্বেই দুরুদ শরীফ পাঠ করতে নিষেধ করেছিলেন। দুরুদ পাঠে বাঁধা দেয়ার নিয়ে ক্ষিপ্ত হয় কৃষকলীগের বহিস্কৃত নেতা দুলাল মিয়া। তাতেই বেধে যায় সংঘর্ষ। এ ঘটনায় অন্তত ৫ জন আহত হয়। পরে দুপক্ষের স্বজনরা আহতদের উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। আহত দেলোয়ার হোসেন লিটন ও তার ছোটভাই সালাউদ্দিন রকিকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ২ পক্ষই পৃথক ২ টি মামলা দায়ের করেছে । উভয় পক্ষের ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে । তাদের কে আদালতে পাঠানোর হয়।