সুলতানপুর ইউনিয়নে, তৃণমূলে জনপ্রিয় চেয়ারম্যান লায়ন শেখ ওমর ফারুক

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে একক চেয়ারম্যান প্রার্থী দিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা ২৯ নভেম্বর ১১নং সুলতানপুর ইউনিয়নের  প্রার্থী বাচাই করার জন্য তৃণমূল নেতা-কর্মীদের মতামতের জন্য এক সভার আয়োজন করেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পদক আল মামুন সরকার সহ সুলতানপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ। এতে চারজন প্রার্থী নৌকা প্রতিক বরাদ্ধের আবেদন করেন তাদের মাঝে হলেন ১১ নং সুলতান পুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান লায়ন শেখ ওমর ফারুক, (যিনি ১১ নং সুলতান পুর ইউনিয়ন পরিষদের উপ নির্বাচনে নৌকা প্রতিকে নির্বাচন করে বিপুল ভোটে জয়ী হন) যুবলীগ নেতা জসীম উদ্দিন রানা,সুধীর ঘোষ ও শেখ মোহাম্মদ মহসীন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা দেশের সব জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে চিঠি দিয়ে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে একক প্রার্থী দেওয়ার নির্দেশ দেন।

কিন্তু সুলতান পুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চারজন প্রতিদ্বন্ধী হওয়ার সত্ত্বেও কোন ধরনের নির্বাচন না করেই কেন্দ্রে চারজনের নাম পাঠানো হবে বলে জানান জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগেরস সভাপতি  আবুল কালাম ভূইয়া,সাধারণ সম্পাদক এম এইচ মাহবুব ।

সুলতানপুর ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান লায়ন শেখ ওমর ফারুক বলেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুমোদন ক্রমে গত উপনির্বাচনে নৌকা প্রতিকে নির্বাচন করেছি এবং আমি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকার উন্নয়নে সকল চেষ্টাই অব্যহত রেখেছি। গতকাল তৃণমূল নেতাকর্মীদের নিয়ে সভায় অংশগ্রহন করেছি যদি বাচাই নির্বাচন হতো তাহলে আমার পক্ষেই ভোট আসতো কারন গত নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরাও নৌকার জন্য আবেদন করেছে। আমি আশা করছি জেলা আওয়ামীলীগের সহযোগীতায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদক্রমে আমি আবারো নৌকা প্রতিকে নির্বাচন করে,নৌকাকে বিজয়ী করবো ইনশাল্লাহ।