নাসিরনগর উপজেলার ১৩ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন: পুলিশের ব্রিফিং প্যারেড

Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদক:  বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) দ্বিতীয় ধাপে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন পরিষদের নিবার্চন। ১৩টি ইউনিয়নের ১১৭টি ওয়ার্ডের ১২৫টি কেন্দ্রের ৬৩১টি বুথে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিভিন্ন রাজনৈতিকদল ও নির্দলীয় প্রার্থীসহ ৬০ জন, সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে ১৬৫ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৪৯৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ইতিমধ্যেই নিবার্চনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নিবার্চন কমিশন।
বুধবার উপজেলা নিবার্চন অফিস থেকে ১৩ ইউনিয়নের ভোট কেন্দ্রে নিবার্চনী সরঞ্জাম পাঠানো হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নিবার্চন সমন্বয়কারী হালিমা খাতুন জানান, অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ন পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়নে ঝুঁিকপূর্ণ কেন্দ্র চিহ্নিত করে সেখানে নেয়া হচ্ছে বাড়তি নিরাপত্তা ।
নির্বাচনে ১৩ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে ৮১৬জন অফিসারসহ পুলিশের ফোর্স, ৫ প্লাটুন বিজিবি, ৩ প্লাটুন র‌্যাব এবং ২১২৫জন আনসার দায়িত্ব পালনে মাঠে থাকবেন। নির্বাচনী ফলাফল সংগ্রহে পুলিশের পক্ষ থেকে পুলিশের ৪টি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে।
এ দিকে বুধবার সকালে ইউপি নিবার্চন উপলক্ষে পুলিশের উদ্যোগে স্থানীয় আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নিবার্চনে দায়িত্ব পালনকারী আইনশৃংখলা বাহিনীর উপস্থিতিতে ব্রিফিং প্যারেড অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) আনিসুর রহমানের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার হালিমা খাতুন, আনসার ভিডিপির জেলা কমান্ড্যান্ট আবদুল্লাহ আল হাদি, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুল্লাহ সরকার।
ব্রিফিং প্যারেডে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নিবার্চন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। ভোট কেন্দ্রে কেউ বিশৃংখলতার চেষ্টা করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে হুশিয়ারি দেন।