ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কলেজছাত্রীকে মারধর করা বখাটেকে আটক করেছে পুলিশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কলেজ ছাত্রীকে প্রকাশ্যে মারধর করা বখাটে মোঃ ইমরানকে (৩২) আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার গভীর রাতে সদর উপজেলার নাটাই উত্তর ইউনিয়নের আমতলী থেকে পুলিশ তাকে আটক করে। কসবা উপজেলার পানিয়ারূপ গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে ইমরান আমতলীতে ভাড়া বাসায় থাকতো। গ্রেপ্তার অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া পুলিশের এস. আই মো. হুমায়ুন কবির জানান, কলেজছাত্রীর পরিবার এ নিয়ে থানায় কোনো অভিযোগ দেয়নি। তার বিরুদ্ধে কিভাবে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া যায় সে বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করা হচ্ছে। মঙ্গলবার রাত পৌণে তিনটার দিকে তাকে আটক করা হয়। সোমবার সকালে এক কলেজ ছাত্রীকে মারধর করে বখাটে। ওই বখাটে ইমরান মাদকাসক্ত বলে স্থানীয় ভাবে জানা গেছে। এর আগেও সে এক ছাত্রীকে এসিড ছুড়ে মারার ভয় দেখায় বলে অভিযোগ রয়েছে। সোমবারে ঘটনার পর সে পালিয়ে যায়। সোমবার সকালে হওয়া ঘটনা সম্পর্কে জানা যায়, অনার্স পড়ুয়া এক ছাত্রী পৌর এলাকার ট্যাংকের পাড়ে অবস্থানের সময় এগিয়ে আসে এমরান নামে এক বখাটে। রবিবার দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার সময় ওই কলেজ ছাত্রী ভিডিও করে তুলে অভিযোগ করে মোবাইল ফোনটি সে ছিনিয়ে নিতে চায়। মোবাইল ফোন দিতে না চাইলে ওই কলেজ ছাত্রীকে প্রথমে লাথি দিয়ে মাটিতে ফেলে দেওয়া হয়। পরে বেধড়ক পেটানো হয়।