স্বামীর শারীরিক কারণেই ভেঙেছে শ্রাবন্তীর তৃতীয় সংসার।

Spread the love

বিনোদন ডেস্ক:  তৃতীয় সংসারও প্রায় ভেঙে গেছে পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জির। স্বামী রোশান সিংয়ের সঙ্গে বিচ্ছেদ চেয়ে আদালতে মামলাও দায়ের করেছেন এ অভিনেত্রী।

অচিরেই তাদের বিচ্ছেদ কার্যকর হয়ে যাবে। যদিও রোশান আগে থেকেই সংসার করতে চাইছেন। কিন্তু কোনোভাবেই সংসার করতে রাজি নন শ্রাবন্তী।

রোশান সিংকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন শ্রাবন্তী। বিয়ের পর সুখের সংসার ছিল তাদের। একসঙ্গে বাংলাদেশেও এসেছেন তারা। কিন্তু হঠাৎ কী কারণে রোশানের সঙ্গে থাকতেই চাইছেন না শ্রাবন্তী?

নির্দিষ্ট কোনো কারণ জানা না গেলেও রোশান সিং এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, যখন শ্রাবন্তীর সঙ্গে প্রেম করতাম, তখন শরীরের প্রচুর যত্ন নিতাম। সংসার শুরু করার পর আমি মোটা হয়ে গেছি। আমি নিজের অস্তিত্ব হারিয়ে ফেলেছিলাম। যে রোশনকে শ্রাবন্তী পছন্দ করেছিল, সেই রোশন আর আমি ছিলাম না। এটার জন্য ওর খারাপ লাগছিল হয়তো।

গত বছরের লকডাউনের সময়ও সংসার করেছিলেন রোশান-শ্রাবন্তী। কিন্তু হঠাৎ শ্রাবন্তীর মধ্যে পরিবর্তন দেখতে পান রোশান। তিনি বলেন, আমি বুঝতে পারছিলাম, ও সময় চাইছে। আলাদা থাকতে চাইছে। আমি ভেবেছিলাম, কিছু দিন আলাদা থাকি আমরা। কিন্তু সেই সময়ে অন্য কেউ চলে আসবে, ভাবতে পারিনি।

জানা যায়, শ্রাবন্তী বর্তমানে ব্যবসায়ী অভিরূপ নাগ চৌধুরীর সঙ্গে প্রেম করছেন। প্রায়ই একান্তে সময় কাটান তারা। কিছু দিন আগে অভিরূপের জন্মদিনে নিজের বাসায় ডেকে কেকও কাটেন শ্রাবন্তী। এমনকি একটি হীরের আংটিও উপহার দেন তাকে।

২০০৩ সালে শ্রাবন্তী প্রথম বিয়ে করেছিলেন নির্মাতা রাজীব বিশ্বাসকে। ২০১৬ সাল পর্যন্ত তারা সংসার করেন। এরপর বিবাহবিচ্ছেদ করে একই বছর মডেল কৃষাণ বিরাজকে বিয়ে করেন এ অভিনেত্রী। এক বছর না যেতেই এই সংসারটি ভেঙে যায়। এরপর ২০১৯ সালে রোশান সিংকে বিয়ে করেন শ্রাবন্তী।