ইরানের ফিলিস্তিনি জাতির প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে : রায়িসি

Spread the love

ইরানের নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি সংগ্রামী ফিলিস্তিনি জাতির প্রতি তার দেশের সমর্থন পুর্নব্যক্ত করেছেন। দখলদার ইহুদিবাদী ইসরাইলের কবল থেকে জেরুজালেম আল কুদস মুক্ত হওয়া পর্যন্ত ইরান ফিলিস্তিনি জাতির প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখবে বলেও জোর দিয়ে উল্লেখ করেন রায়িসি।

রায়িসি ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস এবং ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের প্রধান ইসমাঈল হানিয়া এবং জিয়াদ আন-নাখালার সঙ্গে টেলিফোনালাপে ইরানের এ সমর্থনের কথা ঘোষণা করেন। লেবাননের আল মায়াদিন টেলিভিশন চ্যানেল গতকাল (মঙ্গলবার) এ খবর দিয়েছে।

নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট রায়িসি প্রতিরোধকামী সংগঠনের নেতাদের আশ্বস্ত করে বলেন যে,  ফিলিস্তিনি জাতিকে রক্ষার পাশাপাশি ইহুদিবাদী ইসরাইলের দখলদারিত্ব থেকে জেরুজালেম মুক্ত করার লক্ষ্যে তার দেশ  সব ধরনের সহযোগিতা এবং সমর্থন অব্যাহত রাখবে ।

সম্প্রতি গাজায় ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিরুদ্ধে ১১ দিনের যুদ্ধে ফিলিস্তিনি জনগণের সাহসী বিজয়ের প্রতি অভিনন্দন জানিয়ে রায়িসি বলেন, আল কুদস-আল-শরিফকে মুক্ত করার এ লড়াইয়ে ইসরাইলি বাহিনীকে পিছু হঠাতে বাধ্য করার মাধ্যমে নির্যাতিত জাতি এবং বীরত্বপূর্ণ প্রতিরোধকামী ফিলিস্তিনিরা তাদের দৃঢ়চিত্ত মনোভাবের প্রমাণ দিয়েছে।

গত ১০ মে গাজা উপত্যকার উপর ইহুদিবাদী ইসরাইলের ভয়াবহ বিমান হামলা শুরু হয়। ২১ মে পর্যন্ত চলা এ আগ্রাসনে ৬৯ শিশু ও ৩৯ নারীসহ ২৪৮ ফিলিস্তিনি শহীদ হন। আহত হন আরো ১৯১০ ফিলিস্তিনি।

পক্ষান্তরে ইসরাইলি আগ্রাসনের মোকাবিলায় দখলীকৃত ভূখণ্ডে চার হাজারের বেশি রকেট নিক্ষেপ করে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ সংগঠনগুলো যাতে অন্তত ১৪ ইহুদিবাদী নিহত হয়। শেষ পর্যন্ত ফিলিস্তিনিদের প্রতিরোধের মধ্যে ২১ মে মিশরের মধ্যস্থতায় যুদ্ধবিরতি মেনে নিতে বাধ্য হয় ইহুদিবাদী ইসরাইল।ফলে এ যুদ্ধে ফিলিস্তিনি সংগ্রামীদের বিজয় স্পষ্ট হয় যায়।