লাকসামে নানা আয়োজনে প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠন ৭ মার্চ’র কর্মসূচী পালন

মশিউর রহমান সেলিম, লাকসাম:
কুমিল্লার লাকসামে নানাহ আয়োজনে উপজেলা-পৌরসভা, স্থানীয় প্রশাসন, রাজনৈতিক ও সামাজিক সংস্থাসহ বিভিন্ন সংগঠন রবিবার দিনব্যাপী যথাযথ মর্যাদায় ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ’র বিভিন্ন কর্মসূচীর মাধ্যমে পৃথক পৃথক ভাবে পালন করেছে।
জানা যায়, রবিবার সকালে লাকসাম পৌরশহরের মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে স্থাপিত জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের মুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ, ৭ই মার্চের ভাষন প্রচার, ৭ই মার্চের ভাষনের উপর ভিডিও ডকুমেন্টারী প্রদর্শণ, কবিতা আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক অনুৃষ্ঠান, আলোচনা সভা এবং পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান পৃথক পৃথক ভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
স্থানীয় প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠন পৃথক পৃথক আলোচনা সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর দীর্ঘ আন্দোলন-সংগ্রাম জীবনের লক্ষ্যই ছিলো বাংলাদেশের স্বাধীনতা। সে স্বাধীনতা অর্জনের জন্য একটি রক্তক্ষয়ি যুদ্ধ বাঙ্গালী জাতি করতে হবে তা তিনি অনুধাবন করতে পেরেছেন। মূলতঃ বঙ্গবন্ধুর ৭১ সালের মার্চের প্রথম সপ্তাহ থেকে শুরু করে নানাহ আন্দোলন ও ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষন এ দেশের মানুষকে নতুন মানচিত্রের এক স্বপ্নের আন্দোলিত করান। কারন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জীবন ও রাজনীতির দর্শন ছিলো মানব প্রেম। তিনি ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্টের ২১ দফা থেকে শুরু করে ১৯৭৫ এর ১৫ আগষ্টের পূর্বদিন পর্যন্ত দেশের গণমানুষের উন্নয়নের কথা বলে গেছেন। স্বাধীনতা উত্তর বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের পক্ষে ছিলো তার রাষ্ট্রনীতি।
৭ই মার্চের বিভিন্ন কর্মসূচীতে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন, পৌর প্রশাসন, থানা পুলিশ, মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক, শিক্ষক, স্কাউট, রাজনৈতিক- সামাজিক ও বিভিন্ন পেশাজীবি সংগঠন অংশ গ্রহন করেন।