ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্যাংকের পাড় মুক্ত মঞ্চে রকমারী খাবারের আয়োজন

Spread the love

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্যাংকের পাড় আবদুল কুদ্দুস মাখন মুক্ত মঞ্চে এখন বাহারী আয়োজন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে গত এক দশকে বিপুল পরিমাণ ভবন গড়ে উঠেছে । কিন্তু সে অনুসারে অবসর যাপনের বিনোদন কেন্দ্র তেমন গড়ে উঠেনি। তাছাড়া শরীর চর্চা এবং হাঁটাহাটির জন্যেও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আলাদা কোনো পার্ক নেই, আর তাই পুকুর পাড়ের ছায়া সুশীতল ট্যাংকের পাড়ের নিরিবিলি পরিবেশ আশে পাশের মানুষের বিনোদন এবং হাটাহাটির একটি নির্ভরযোগ্য জায়গা হয়ে উঠেছে।

সকাল , বিকেল এবং সন্ধ্যা বেলায় বিপুল সংখ্যাক মানুষ ট্যাংকের পাড়ে হাটাহাটি করেন, কেউ কেউ ডাক্তারের পরামর্শক্রমে বিভিন্ন ধরনের ব্যায়াম ও করে থাকেন। মানুষের এই সমারোহকে কেন্দ্র করে ট্যাংকের পাড়ের মুক্ত মঞ্চে গত দু এক বছরে গড়ে উঠেছে নানা রকমের স্ট্রিট ফুড বা রাস্তার খাবার । এই সকল খাবারের মধ্যে রয়েছে ডালপুরি, ফুচকা, চটপটি, ভেলপুরি, পাকুড়া, হালিম, ঝালমুড়ি, বিভিন্ন ফলের ভর্তা, চিতঐ পিঠা লেবুর শরবত,এবং আরো অনেক রকমের খাবার।

বিদেশের স্ট্রিট ফুড স্বাস্থ্যসম্মত, উপাদেয় ও আকর্ষণীয় হয়। কিন্ত বাংলাদেশের রাস্তায় যেসব খাবার তৈরি ও বিক্রি হয়, তা বিশুদ্ধ, নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত নয়। এইসব খাবার সস্তা, তৈলাক্ত ও ঝাল হওয়ার কারণে রাস্তার খাবারের বেশ কদর রয়েছে।

শিশুদের খেলাধুলা এবং ছোটাছুটির একটি নিরাপদ স্থান হয়ে উঠেছে টেংকের পাড়ের আব্দুল কুদ্দুস  মাখন মুক্ত মঞ্চ। উক্ত স্থানের পরিচ্ছন্নতা, আধুনিকায়ন এবং নিরাপত্তার বিষয়ে জোরারোপ করেন অনেক পথচারী।