জীবিত কাইরন পোলার্ডকে মৃত্যুতে পরিনত করলো ইন্টারনেটের গুজব বার্তা।

বতর্মান সময়ে ইন্টারনেটে ভুয়া খবরের এতই ছড়াছড়ি যে, সেখান থেকে কোনটি সঠিক আর কোনটি গুজব তা বিচার করা মুশকিল হয়ে দাঁড়ায়।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের তারকা ক্রিকেটার কাইরন পোলার্ডকে নিয়ে ইন্টারনেটে ভুয়া খবর ছড়িয়ে পড়েছিল। শুক্রবার কয়েকজন ইউটিউবার দাবি করতে থাকেন যে, ভয়াবহ গাড়ি দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে পোলার্ডের।
মুহূর্তেই খবরটি চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। পোলার্ডের মৃত্যুর গুজব সংক্রান্ত মোট চারটি ভিডিও দেখা গেছে ইউটিউবে। ফেইসবুকেও কয়েকটি ভিডিও পাওয়া গেছে। টুইটারেও ছড়ানো হয়েছে এ খবর। কিন্তু মজার ব্যাপার হল, খবরটি যখন ছড়িয়ে পড়ছে তখন পোলার্ড মাঠে ক্রিকেট খেলছিলেন। আবুধাবিতে টি-টেন লিগে পোলার্ডের দল ডেকান গ্ল্যাডিয়েটর্স তখন পুনে ডেভিলসের বিপক্ষে ম্যাচ খেলছিল। পোলার্ড ছিলেন দলের নেতৃত্বে।
যদিও বতর্মানে বাংলাদেশে থাকার কথা ছিল পোলার্ডে। কিন্তু ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে সফর থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন এ অলরাউন্ডিার। পরে বোঝা যায়, টি-টেন খেলতেই ঢাকায় আসেননি এই তারকা।

পুরো খবরটি একেবারেই মিথ্যা।এমন মিথ্যা খবর ছড়ানোয় হতাশা প্রকাশ করেছেন অনেকে। ব্যাকিং দ্য ট্রুথ নামের একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে মন্তব্য করা হয়, ‘এমন গুজব দেখে হতাশ হলাম। তিনি জীবিত আছেন, লিগ খেলছেন। মৃত্যুর খবর দেখে আমার তো হার্টঅ্যাটাক হওয়ার জোগাড়।’

সুরেশ ভিজে নামের এক ভারতীয় লিখেছেন, ‘ভুয়া নিউজ। পোলার্ড সুস্থ আছেন, ভালো আছেন।’

পথিকটিভি/ এ আর