কুমিল্লায় স্ত্রী-শাশুড়িকে কুপিয়ে হত্যা: ঘাতক জামাই আটক

Spread the love

হালিম সৈকত  , কুমিল্লা:

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে স্ত্রী ও শাশুড়িকে কুপিয়ে হত্যা করেছে এক রিকশা চালক। ঘাতক লোকমান হোসেনকে (৩৫) আটক করেছে বুড়িচং থানা পুলিশ। উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের হালগাঁও গ্রামে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এই ঘটনা ঘটে।
ঘাতক লোকমান হোসেন (৩৫) মাদকাসক্ত। সে ওই এলাকার মৃত আলম মিয়ার ছেলে।
নিহতরা হচ্ছেন, হালগাঁও গ্রামের লোকমান হোসেনের স্ত্রী ফারজানা আক্তার (২৫), ফারজানার মা কুমিল্লা সদর উপজেলার বল্লভপুর গ্রামের শাহ আলমের স্ত্রী বানু বিবি (৫৫)।
হত্যার পর মায়ের লাশ চৌকিতে, মেয়ের লাশ মাটিতে পড়েছিলো।
স্থানীয় বাসিন্দা ইমাম হোসেন মুন্সী জানান, পরকীয়ায় জড়িত থাকার অভিযোগে স্ত্রী ফারজানা আক্তারের ওপর ছুরি নিয়ে হামলা করে লোকমান।
স্থানীয়রা জানান, তাদের হত্যার পর লাশের পাশে বসে থাকেন লোকমান হোসেন। লোকমান পেশায় রিকশা চালক। লোকমান-ফারজানা দম্পত্তির এক ছেলে এক মেয়ে রয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে লোকমানকে গ্রেফতার করে।
লোকমানের দাবি, তার স্ত্রী ফারজানা আক্তার পরকীয়ার আসক্ত। বিষয়টি সমাধানের জন্য পার্শ্ববর্তী কালির বাজার ইউনিয়নের বল্লবপুর গ্রাম থেকে সকালে তার শাশুড়ী বানু বিবিকে খবর দিয়ে  তার বাড়ীতে নিয়ে আসেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যার আগে স্ত্রীর পরকীয়ার বিষয়টি তার শাশুড়ীকে জানালে তিনি তা সমাধান না করে উল্টো জামাইকে গালমন্দ করেন। লোকমানকে দোষী সাভ্যস্ত করেন। এতে উত্তেজিত হয়ে লোকমান ছুরি দিয়ে শাশুড়ী ও তার স্ত্রীকে কে হত্যা করে।
বুড়িচং দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক আজিজুল বারী নয়ন জানান, ঘটনাস্থলে এসে স্ত্রী-শাশুড়িকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ঘাতককে আটক করা হয়েছে। তার দাবি পারিবারিক কলহের কারণে সে এই ঘটনা ঘটিয়েছে।
বুড়িচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মোজাম্মেল হক বলেন, আমরা বিষয়টি আরো তদন্ত করে দেখবো।
পথিকটিভি/ এ আর