লাকসাম পৌর নির্বাচনে বিজয়ী মেয়র-কাউন্সিলরদের শপথ অনুষ্ঠান

Spread the love

মশিউর রহমান সেলিম, লাকসামঃ

কুমিল্লার লাকসাম পৌর নির্বাচনে বিজয়ী শাসকদলের পুরো প্যানেল মেয়রসহ ৯টি ওয়ার্ডে
সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরদের শনিবার সকালে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজ সম্মেলন
কক্ষে শপথ অনুষ্ঠান চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।
জানা যায়, এ পৌর নির্বাচনে গত ৩১ ডিসেম্বর মনোনয়ন পত্র জমার শেষ দিনে মেয়র পদে শাসকদলের
অধ্যাপক আবুল খায়ের ও বিএনপির বেলাল রহমান মজুমদার মনোনয়নপত্র জমা দিলেও ৯টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর
প্রার্থীদের মধ্যে ৬টি ওয়ার্ডেই বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় সাধারণ কাউন্সিলর ও ৩টি সংরক্ষিত মহিলা
কাউন্সিলর পদে অন্য কোন প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় এগিয়ে থাকেন। ৩রা জানুয়ারি
মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষ দিনে বিএনপি প্রার্থী বেলাল রহমান মজুমদারের মনোনয়নপত্রের ত্রুটি
থাকায় রিটার্নিং অফিসার তার মনোনয়নপত্রটি বাতিল করে দেন। ৭ জানুয়ারি কাউন্সিলর পদে ৬নং
ওয়ার্ডের আবুল হোসেন বাবুল ও সুজন হোসেন এবং ৭নং ওয়ার্ডে সোহেল আরমান। ১০ জানুয়ারি
৫নং ওয়ার্ডে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের প্রার্থী আবুল কাশেম ও ৬নং ওয়ার্ডে বিএনপির প্রার্থী
রুহুল আমিন ও বেলায়েত হোসেন তাদের মনোয়নপত্র প্রার্থীতা থেকে প্রত্যাহার করে নিলে শাসকদলের
পুরো প্যানেল বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় জয় লাভ করেন।
উল্লেখ্যএ ছাড়া পৌর এলাকার ৬টি ওয়ার্ডে অন্য কোন প্রার্থী না থাকায় আওয়ামীলীগের একক
দলীয় প্রার্থী ১নং ওয়ার্ড ডাঃ মোহাম্মদ উল্যাহ, ২নং ওয়ার্ডে আলহাজ্ব খলিলুর রহমান, ৩নং ওয়ার্ডে
এডভোকেট মাসুদ হাসান, ৪নং ওয়ার্ডে আব্দুল আজিজ, ৮নং ওয়ার্ডে মোঃ দেলোয়ার হোসেন ও ৯নং
ওয়ার্ডে সাবেক কাউন্সিলর গোলাম রাব্বানী এবং ৩টি সংরক্ষিত মহিলা আসনে নাছিমা আক্তার,
নাছিমা সুলতানা ও মোশফেকা আলম মিতা বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত, মনোনয়নপত্র
প্রত্যাহারের শেষ দিনে মেয়র পদে শাসকদলের অধ্যাপক আবুল খায়ের, কাউন্সিলর প্রার্থী ৫নং ওয়ার্ড, ৬নং
ওয়ার্ড ও ৭নং ওয়ার্ড প্রতিপক্ষ প্রার্থীরা তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিলে অবশিষ্ট ৫নং ওয়ার্ডে
শাসকদলের মন্সুর আহমেদ মুন্সি, ৬নং ওয়ার্ডে আবু সায়েদ বাচ্চু, এবং ৭নং ওয়ার্ডে শাহজাহান
মজুমদার বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত।
উক্ত শপথ অনুষ্ঠানে জেলা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ দেলোয়ার হোসেন সহ স্থানীয় সরকার বিভাগের
সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, লাকসামসহ জেলা-উপজেলা সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
এ ব্যাপারে জেলা-উপজেলা ও বিভাগীয় কর্মকর্তাদের মুঠোফোনে বার বার চেষ্টা করেও শপথ অনুষ্ঠানের
বিস্তারিত তথ্য নেয়া সম্ভব হয়নি।