ইরানের পরমাণু সমঝোতায় ফিরিয়ে আনার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্তনি ব্লিঙ্কেন

Spread the love

দীর্ঘ সময় অবরোধের মধ্যে থেকেও মাঝে মধ্যে হুমকি দিয়ে থাকে ইরান। তার এই হুমকির পেছনে মূল কারণ হচ্ছে তাদের সামরিক শক্তি।

এবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্তনি ব্লিঙ্কেন আবারো তার দেশকে ইরানের পরমাণু সমঝোতায় ফিরিয়ে আনার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তবে একইসাথে তিনি নতুন দাবি উত্থাপন করে এ বিষয়ে পূর্বশর্ত আরোপ করেছেন।

ব্লিঙ্কেন এনবিসি টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ইরান যদি পরমাণু সমঝোতায় দেয়া প্রতিশ্রুতিতে ফিরে আসে তবে ওয়াশিংটনও একই কাজ করতে প্রস্তুত রয়েছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী দাবি করেন, একটি পরমাণু বোমা তৈরির প্রয়োজনীয় উপাদান উৎপাদন করা থেকে ইরান মাত্র কয়েক মাস দূরে রয়েছে।

আমেরিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমন সময় এ দাবি করলেন যখন ইরান শুরু থেকেই পরমাণু অস্ত্র তৈরির চেষ্টা চালানোর অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে এসেছে। ইরান বহুবার বলেছে, বেসামরিক কাজে ব্যবহার করার উদ্দেশ্যে সেদেশের পরমাণু কর্মসূচি পরিচালিত হচ্ছে। আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থাও অনেকবার ইরানের এ বক্তব্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার শাসনামলে ইরানের সঙ্গে আরো পাঁচ দেশকে সঙ্গে নিয়ে পরমাণু সমঝোতা সই করে আমেরিকা। কিন্তু পরবর্তী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালের মে মাসে সে সমঝোতা থেকে বেআইনিভাবে আমেরিকাকে বের করে নেন। বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নির্বাচনি প্রচারের সময় ওই সমঝোতায় ফিরে আসার প্রতিশ্রুতি দিলেও এখন ইরানের জন্য ভিত্তিহীন পূর্বশর্ত আরোপ করার চেষ্টা করছেন।

সূত্রঃ ইনকিলাব

পথিকটিভি/ এ আর