সিনেটে শুরু ট্রাম্পের অভিশংসন বিচারপ্রক্রিয়া

Spread the love

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম দ্বিতীয়বার অভিশংসিত হতে যাচ্ছেন সদ্য সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার দ্বিতীয় অভিশংসনের বিচারপ্রক্রিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় সিনেটে প্রস্তাবটির দলিল হস্তান্তর করেছেন অভিশংসন ব্যবস্থাপকরা। অভিশংসন ব্যবস্থাপকের দায়িত্ব পালন করছেন ডেমোক্র্যাট কংগ্রেসম্যান জ্যামই রাসকিন।
নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির ভুয়া দাবি, নির্বাচনব্যবস্থাকে দুর্নীতিগ্রস্ত করার প্রয়াসসহ গত ৬ জানুয়ারির ক্যাপিটল হিলে হামলার জন্য সমর্থকদের উসকানি দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে ট্রাম্পের অভিশংসন প্রস্তাবে। ওই দাঙ্গায় এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছেন। সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, প্রতিনিধি পরিষদের অভিশংসন ব্যবস্থাপকরা ক্যাপিটলে হামলার প্রতিবাদে কালো মাস্ক পরে দুইজন দুইজন করে সিনেট কক্ষে প্রবেশ করেন। তাদের নেতৃত্বে ছিলেন ডেমোক্র্যাট কংগ্রেসম্যান মেরিল্যান্ডের প্রধান অভিশংসন ব্যবস্থাপক জ্যামই রাসকিন। সিনেট ফ্লোরে অভিশংসন প্রস্তাব পাঠ করেন তিনিই।
রাসকিন বলেন, ডোনাল্ড জন ট্রাম্প বড় ধরনের অপরাধে জড়িত হয়ে পড়েন। যুক্তরাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে সহিংসতা উসকে দেওয়ার অপরাধ করেছেন তিনি।
‘গণতান্ত্রিক ব্যবস্থতার অখণ্ডতাকে তিনি হুমকি দিয়েছেন, শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তরে হস্তক্ষেপ এবং সরকারের সমমর্যাদার শাখাগুলোকে বিপন্ন করে তুলেছেন।’
প্রেসিডেন্ট বাইডেনের শপথ নেওয়ার সাত দিন আগে গত ১৩ জানুয়ারি প্রতিনিধি পরিষদে নজিরবিহীন দ্বিতীয়বারের মতো অভিশংসনের মুখোমুখি হয়েছেন ৭৪ বছর বয়সী ট্রাম্প। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সিনেটে তার বিচারপ্রক্রিয়া শুরু হতে যাচ্ছে।
সিনেটে ডেমোক্র্যাটিক সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা চাক শুমার বলেন, ১০০ সিনেট সদস্য বিচারকের ভূমিকা পালন করবেন। মঙ্গলবার তাদের শপথ হবে এবং ট্রাম্পকেও সমন দেওয়া হবে।
অভিশংসন বিচারপ্রক্রিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দুইটি সূত্রের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের দ্বিতীয় অভিশংসনে প্রধান বিচারপতি জন রবার্টস সভাপতিত্ব করতে পারবেন না। কারণ তিনি প্রথম অভিশংসনে সভাপতিত্ব করেছিলেন।
সূত্র দুটি এও জানিয়েছে, প্রধান বিচারপতির পরিবর্তে সিনেটে প্রেসিডেন্টের প্রো টেম্পোর (ডেপুটি স্পিকার), সিনেটে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে থাকা সেন প্যাথ্রিক লিহে এ বিচারপ্রক্রিয়ায় সভাপতিত্ব করবেন বলে আশা করা যাচ্ছে।
সংবিধান বলছে, অভিশংসন বিচারকের মুখোমুখি ব্যক্তি যদি আমেরিকার বর্তমান প্রেসিডেন্ট হন, তাহলে প্রধান বিচারপতি সভাপতিত্ব করবেন। এছাড়া অন্যান্য ক্ষেত্রে সিনেটররা সভাপতিত্ব করবেন।

পথিকটিভি/ এ আর