মালয়েশিয়ায় নিয়োগকর্তাদের বহন করতে হবে করোনা পরীক্ষার ব্যয় 

Spread the love
এম এ  আবির  ,মালয়েশিয়া: দেশটিতে কর্মরত বিদেশি কর্মীদের করোনার ব্যয় নিয়োগকর্তাকেই বহন করতে হবে। নিয়োগকর্তারা কোভিড-১৯ নির্ধারণসহ সমস্ত টিকাদান ব্যয় বহন করা বাধ্যতামূলক বলেছেন, মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী এম সারাভান।
এর আগে মঙ্গলবার অ্যাকসেস গ্যারান্টি জরুরি বৈঠকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  মন্ত্রী খায়েরি জামাল উদ্দিনও  বলেছেন অভিবাসী কর্মীদের কোভিড-১৯ টিকা অগ্রাধিকার তালিকায় থাকতে হবে।মানব সম্পদমন্ত্রী বলনে, গতবছর কোভিড-১৯ পরিক্ষার জন্য মন্ত্রনালয় থেকে নির্দেশ দেওয়া হলে নিয়োগকর্তারা সাধারণ শ্রমিকের কাছ থেকে অর্থ আদায় করেছিল।
এবছরে আমরা এটা হতে দিবনা। শ্রমিক আইনে গৃহায়ণ ও সুযোগসুবিধা আইন ১৯৯০ এর ২৪ ধারার অধীনে ৪৪৬ নিয়োগকর্তারা অনুসরণ করতে হবে।
সারাভানন বলছেন, মন্ত্রণালয় কর্মস্থলে কোভিড -১৯ এর বিস্তার রোধে কর্মক্ষেত্রে পরিদর্শন অব্যাহত রেখেছে। “১ জানুয়ারী থেকে শ্রম বিভাগ, সামাজিক সুরক্ষা সংস্থা (সকসো) এবং পেশাগত সুরক্ষা ও স্বাস্থ্য বিভাগের সমন্বয়ে গঠিত কোভিড -১৯ স্ক্রিনিং টাস্ক ফোর্স নিয়োগকর্তাদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য বিদেশী কর্মীদের নিয়োগের কর্মক্ষেত্রগুলি পরীক্ষায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে। “উদ্দেশ্য হ’ল এই বিপজ্জনক ব্যাধির বিস্তারকে নিয়ন্ত্রণ করার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে মালিকদের সচেতনতা বাড়ানো।
এ দিকে মালয়েশিয়ায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিনে দিনে বেড়েই চলেছে। কড়া বিধিনিষেধের মধ্যেও গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ২ হাজার ৫৯৩ জন শনাক্তের কথা জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ।
এ নিয়ে মালয়েশিয়ায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ২৫ হাজার ৪৩৮ জনে। এর মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন ৫১৩ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৫৭৮ জন।